তোমার প্রিয় ঋতু বসন্ত

রচনা : তোমার প্রিয় ঋতু বসন্ত

বাংলা

তোমার প্রিয় ঋতু বসন্ত

আজি বসন্ত জাগ্রত দ্বারে
তব অবগুন্ঠিত কুণ্ঠিত জীবনে
কোরো না বিড়ম্বিত তারে
আজি খুলিয়ো হৃদয় দল খুলিয়ো
আজি ভুলিয়ো আপনপর ভূলিয়ো
এই সঙ্গীত মুখরিত গগনে
তব গন্ধ তরঙ্গিয়া তুলিয়ো। – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

বছরে গ্রীষ্ম, বর্ষা, শরৎ, হেমন্ত, শীত এবং বসন্ত এই ছয়টি ঋতু থাকলেও প্রতি মানুষের কাছে কোন একটি ঋতু বিশেষ পছন্দের হয়। আমার কাছে সবথেকে প্রিয় ঋতু হল বসন্তকাল।

সময়কাল : বাংলা মাসের ফাগুন এবং চৈত্র মাস মিলে বসন্ত ঋতু হয়। ইংরেজি মাসের মার্চ, এপ্রিল, মে এই তিন মাস জুড়েই সাধারণত বসন্ত ঋতু বিরাজমান থাকে।

রচনা : তোমার প্রিয় ঋতু

কারণ : আমার কাছে বসন্ত ঋতু খুব পছন্দের তার একাধিক কারণ আছে। গাছের সমস্ত পাতা ঝরে গিয়ে নতুন পাতা সৃষ্টির এক অপরূপ দৃশ্য দেখে মুগ্ধ না হয়ে পারা যায় না। আমি মনেপ্রাণে বাঙালি তাই দোলযাত্রা বা হোলি খেলা শান্তিনিকেতনের বসন্ত উৎসব আমাকে ভীষণ নাড়া দেয়। বছরের শেষে চৈত্র সেল বাঙালির ভীষণ আকর্ষণীয় বিষয়।

এই ঋতুর বৈশিষ্ট্য : পলাশ ফুল এক অপরূপ শোভা জাগায় প্রকৃতিতে। শীত চলে যাওয়ার পরে এবং গীর্ষকাল আসার আগে যে মৃদুমন্দ বাতাস থাকে সেটাই এই ঋতু প্রধান বৈশিষ্ট্য। আম গাছ মুকুলের ভারে নুইয়ে পড়ে। কোভিদ ভাষায় বলা যায় –

ফাল্গুনে বিকশিত কাঞ্চন ফুল
ডালে ডালে পুঞ্জিত আম্রমুকুল।

বসন্তকালে বিভিন্ন ফুল ফোটে। তার মধ্যে সুন্দর লাগে খুবই অশোক, রক্তকাঞ্চন, কুসুম, পলাশ, শিমুল, মনিমালা ইত্যাদি। বসন্তকালে এত ভীষণ পরিমাণে ফুল ফোটে কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায় বলেছিলেন ফুল ফুটুক নাই বা ফুটুক আজ বসন্ত।
কলা সারা বছরই পাওয়া যায় কিন্তু এটি বসন্তের ফল। এছাড়া স্ট্রবেরি, চেরি, অ্যাভোকাডো এই বসন্তকালে সুন্দরভাবে ফলিত হয়।

যদি রাত্রে তাড়াতাড়ি ঘুমাতে না পারেন তাহলে অবশ্যই পড়ুন

উপসংহার : শিবরাত্রি, বাসন্তী পূজা, দোল উৎসব, গাজন মেলাতে বসন্ত যে কোথা থেকে পার হয়ে যায়, আমরা বুঝতে পারি না। নতুন পাতা সৃষ্টির মাধ্যমে প্রকৃতি আমাদের যেন বলতে চায় নতুন উদ্যমে আমাদের জীবনটাকে শুরু করার জন্য।

আজিকার দিন না ফুরাতে
হবে মোর এ আশা পুরাতে
শুধু এবারের মত
বসন্তের ফুল যত
যাব মোরা দুজনে কুড়াতে। – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।।

তোমার প্রিয় ঋতু বসন্ত

https://www.facebook.com/JPslearning

তোমার প্রিয় ঋতু বসন্ত

Follow Us On :
2

Leave a Reply

Your email address will not be published.